কানাডায় বাংলাদেশ উৎসবে জাস্টিন ট্রুডোর শুভেচ্ছাবার্তা

কানাডায় অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ‘বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল’ উপলক্ষে শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো।

আগামী ২৮ ও ২৯ এপ্রিল টরন্টোর ফার্মেসি অ্যাভিনিউতে চতুর্থবারের মতো এ উৎসবের আয়োজন করেছে কানাডার প্রবাসী বাংলা সাপ্তাহিক ‘বাংলামেইল’।

শুভেচ্ছাবার্তায় কানাডার প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘চতুর্থ বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালে অংশ নিতে যাওয়া সবাইকে জানাচ্ছি আন্তরিক শুভেচ্ছা। এ আয়োজনে বাংলাদেশি-কানাডিয়ানদের সমৃদ্ধ সাংস্কৃতিক চর্চার সুযোগ থাকবে। বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের জন্য তাদের সম্মান জানানো হবে।”

জাস্টিন ট্রুডো আরও বলেন, “আমি বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল কমিটিকে ধন্যবাদ জানাতে চাই এজন্য যে, তারা অসাধারণ একটি আয়োজন করে যাচ্ছেন। কারণ নিজেদের ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি কানাডিয় বন্ধুদের মাঝে পরিচিত করার এটা একটা অবারিত সুযোগ। এবারের বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যাল আনন্দময় ও স্মরণীয় হয়ে উঠুক এ শুভকামনা আমার।”

বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালের আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম মিন্টু বলেন, “আমাদের এ আয়োজন উপলক্ষে গতবছরও প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো শুভেচ্ছাবার্তা দিয়েছিলেন। এবারও তার শুভেচ্ছাবার্তা পেলাম। তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই। এটা আমাদের জন্য অনেক সম্মানের।”

ফেস্টিভ্যালের প্রধান আহ্বায়ক আব্দুল হালিম মিয়া বলেন, “কানাডা-বাংলাদেশের সংস্কৃতি, কৃষ্টি ও ঐতিহ্যের মধ্যে যোগাযোগ তৈরি এ আয়োজনের মূল লক্ষ্য। হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতি এ আয়োজনের মূল প্রাণ। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না।”

আয়োজক কমিটির চেয়ারম্যান রেজাউল কবির বলেন, “বাংলাদেশ ফেস্টিভ্যালকে সফল করার জন্য ৭০ সদস্যের স্বেচ্ছাসেবক দল কাজ করে যাচ্ছেন। সবার সহযোগিতায় এবারের আয়োজনও সফল হবে।”

কানাডায় বাংলাদেশ হাই কমিশনার মিজানুর রহমান উৎসবের উদ্বোধন করবেন বলে জানায় আয়োজক সংগঠনটি।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে- প্রধান অতিথি অন্টারিও প্রিমিয়ার ক্যাথলিন উইন ও টরন্টো সিটি মেয়র জন টরি, অন্টারিওর অভিবাসনমন্ত্রী ল্যরা এ্যালবেনিজ, কুইবেকের কনসাল জেনারেল জামিলুর রহিম, বিচেস ইস্টইয়র্ক রাইডিংয়ের ন্যাথানিয়েল এরিস্কিন স্মিথ, টরন্টো সিটি কাউন্সিলর, ফ্যাসিলিটিজ কমিটির প্রধান জিম কিরিয়ানজিনস, টরন্টো সিটির বাজেট কমিটির প্রধান কাউন্সিলর গেরি ক্রাফোর্ডম ও কাউন্সিলর নিথান শান।