ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিংয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত শ্রাবণী

ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিংয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত শ্রাবণী আখতার। এ বছর ভেনো ৩৬০ কনফারেন্স হলে অনুষ্ঠিত হয় অনূর্ধ ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিং চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের লড়াই। এই লড়াইয়ে শতাধিক অংশগ্রহণকারীকে হারিয়ে এ গৌরব অর্জন করেন ব্রিটিশ বাংলাদেশি শ্রাবণী আখতার।

শ্রাবণীর বাড়ি সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুরে। সম্ভবত ব্রিটিশ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এটাই প্রথম ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিং চ্যাম্পিয়ন খেতাব জয়।

পাঁচ রাউন্ডের প্রতিটিতে হারিয়ে ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিং চ্যাম্পিয়ন খেতাব জিতে নিয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ ওয়েটলিফটিং কন্যা ১৬ বছর বয়সী শ্রাবণী।

লন্ডনের ব্রিকলেন এলাকায় ২০০১ সালের মার্চে জন্ম নেন শ্রাবণী। বাহা উদ্দিন এবং সাঈদা নাদিরা বেগম দম্পতির চার ছেলে, দুই মেয়ের মধ্যে শ্রাবণী প্রথম। শ্রাবণী লেখাপড়ায়ও ভাল। গেল জিসিএসসি পরীক্ষায় ৫টি স্টার ও ৭টি এ পেয়ে সাফল্যের সাথে উত্তীর্ণ হয়েছেন।

আগামী ওয়েটলিফটিং বিশ্ব শিরোপা জয় করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন শ্রাবণী আখতার।

প্রবল ইচ্ছাশক্তি আর একাগ্রতার বিজয়ে রচিত হলো আরেকটি নতুন ইতিহাস। ভুরু কুচকানো মানুষগুলোর কাছে পৌঁছে গেল শ্রাবণীর বার্তা- বাংলাদেশি, মুসলিম পরিবার কিংবা শারীরিক গড়ন কোনো বিষয় নয়; মন-প্রাণ এক করে চাওয়াটাই বড় ব্যাপার।

মুসলিম মেয়েদের হিজাব সম্পর্কে শ্রাবণী বলেন, পেশাদার খেলাধুলার ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তা একটি বড় ব্যাপার।

তার মতে, হিজাব মুসলিম নারীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তা মেনে খেলাধুলায় অংশ নিতে সাহায্য করবে।