কাঁচাবাজারে কত ব্যয় করেন কানাডাবাসী?

সপ্তাহের শুরুতেই বাজার-সদাই করে ফ্রিজ ভরে সপ্তাহের বাকি দিনগুলোর জন্য নিশ্চিন্ত থাকতে চায় সবাই। কানাডার কর্মব্যস্ত মানুষও এর ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু পুরো সপ্তাহজুড়ে খাবারের পেছনে কাঁচাবাজর বাবদ কানাডাবাসী ঠিক কত ব্যয় করেন?

এ হিসাব বের করা সহজ নয় কোনোমতেই। কিন্তু প্রয়োজনীয় পুষ্টি ও বাজার পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে গ্লোবালটাইমস জানাচ্ছে, কানাডার চার সদস্যবিশিষ্ট একটি পরিবার গড়ে শুধু কাঁচাবাজার বাবদ সপ্তাহে ২২০ ডলার ব্যয় করে।

কানাডার পরিসংখ্যান বিভাগ নিয়মমাফিক মাসিক ও বার্ষিক ভিত্তিতে খাদ্য সামগ্রীর দাম বৃদ্ধি সম্পর্কে তথ্য উপস্থাপন করে। কিন্তু এটি সাধারণ মানুষের এ বাবদ ব্যয়কে ঠিক চিত্রায়িত করে না। আর এ কারণেই সাপ্তাহিক বাজার খরচ বের করতে গ্লোবাল টাইমস শরণাপন্ন হয় কানাডার পুষ্টি প্রাপ্যতা ও প্রয়োজনীয়তা বিষয়ক তথ্যের ওপর।

বিভিন্ন প্রদেশ ও কাউন্টি পর্যায়ের তথ্য বিশ্লেষণ করে সংবাদমাধ্যমটি বলছে, চার সদস্যবিশিষ্ট একটি কানাডীয় পরিবার কাঁচাবাজার বাবদ প্রতি সপ্তাহে গড়ে ন্যূনতম ২২০ ডলার ব্যয় করে। এটি এমন এক পরিবার যেখানে মা-বাবার বয়স ৩১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে, রয়েছে ২০ বছরের কম বয়সী কিশোর এবং ৪-৮ বছর বয়সী একটি মেয়ে শিশু। একই সঙ্গে বাজার পরিস্থিতির ক্ষেত্রে শহরের পাশাপাশি বিবেচনায় নেওয়া হয়েছে প্রত্যন্ত অঞ্চলের বাজারকেও।

সাধারণভাবে একটি পরিবারের খাদ্য বাজেটের পরিমাণ মোট আয়ের ১৫ শতাংশের বেশি হওয়া উচিত নয় বলে মনে করা হয়। সে হিসাবে প্রাপ্ত গড় ব্যয়ের পরিমাণ ২২০ ডলার হলে সপ্তাহে একটি পরিবারের করবহির্ভূত আয় হওয়া উচিত ১ হাজার ৪৫০ ডলার। এ ক্ষেত্রে ওই পরিবারের বার্ষিক আয় হতে হবে ১ লাখ ডলার, যাতে কর দেওয়ার পরও পুষ্টি চাহিদা মেটানোর মতো যথেষ্ট অর্থ হাতে থাকে। একই মানদণ্ড অনুযায়ী, কোনো পরিবারের মোট আয়ের ৩০ শতাংশ হওয়া উচিত এর আবাসন ব্যয়। কিন্তু বর্তমানে কানাডার পরিবারগুলোকে এর চেয়ে অনেক বেশি অর্থ এ বাবদ ব্যয় করতে হয়, যা সংশ্লিষ্ট পরিবারের খাদ্য বাজেটকে সংকুচিত করছে। এমনকি এ টানাপোড়েন অনুভবের জন্য কাউকে এখন আর টরন্টোর মতো ব্যয়বহুল শহরে না থাকলেও চলে।

কানাডার বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন গুয়েল্ফ বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য, কৃষি ও সম্পদ অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মাইকেল ভন ম্যাসো বলেন, ‘যেকোনো পরিবারের বাজেটের সবচেয়ে নমনীয় অংশটি হচ্ছে খাদ্য। বাড়িভাড়া, বিভিন্ন বিল, যাতায়াত খরচ না কমিয়ে অধিকাংশ পরিবার এ অংশটির ওপরই হাত দেয় সবার আগে। ফলে পুষ্টি নিরাপত্তার বিষয়টি পড়ে সংকটে। আর অন্য সবকিছুর ব্যয় বৃদ্ধি খাদ্য নিরাপত্তাকে ব্যাপক ঝুঁকির মধ্যে ফেলছে।’

তবে বিভিন্ন খাতের উচ্চ ব্যয় এখনো ভালোভাবেই সামাল দিতে পারছে কানাডা। অন্তত কাগজপত্রে এ সংকট এখনো বড় আকার ধারণ করেনি। এ ছাড়া গত আগস্ট ও সেপ্টেম্বর টানা দুই মাসে কাঁচাবাজারের বিভিন্ন পণ্যের দাম কিছুটা কমেছে। এটি আশাব্যঞ্জক হলেও এক বছরে প্রক্রিয়াজাত খাবারের দামের ২ দশমিক ৭ শতাংশ বৃদ্ধি শঙ্কাটা জিইয়েই রাখছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকেরা।