যে কারণে তাসকিন-সৌম্য-লিটন বাদ

দল ঘোষণা নিয়ে একটা নাটকই হলো। বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান দুপুরে জানালেন, আজ দল ঘোষণা হবে না। বেলা তিনটায় দুই নির্বাচক আবার সংবাদমাধ্যমের সামনে এলেন দল ঘোষণা করতে!

ত্রিদেশীয় সিরিজে যে দলটা ঘোষণা করা হয়েছে আজ, সেটিতে যে তাসকিন আহমেদ ও সৌম্য সরকার থাকবেন না, কালই সেটি জানা গিয়েছিল। দুই তারকা ক্রিকেটার পারফরম্যান্সের কারণে প্রথমবারের মতো বাদ পড়লেন বাংলাদেশ দল থেকে।

জুনে চ্যাম্পিয়নস ট্রফি থেকে অক্টোবরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফর—৫ ওয়ানডে খেলে মাত্র ৪ উইকেট পেয়েছেন তাসকিন। এর মধ্যে টানা তিন ম্যাচে ছিলেন উইকেটশূন্য। সৌম্যর অবস্থা অনেকটা একই। এই ছন্দ ফিরে পান তো এই হারান! তাসকিনের মতো তিনিও গত চ্যাম্পিয়নস ট্রফি ও দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ছিলেন ভীষণ নিষ্প্রভ। ৬ ওয়ানডেতে রান করেছেন ৪২, দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন একবারই। সর্বোচ্চ করেছেন ২৮ রান, ১ জুন ওভালে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

ছন্দ হারিয়ে ফেলা সৌম্য-তাসকিনকে দলে না রাখা নিয়ে মিনহাজুলের ব্যাখ্যা, ‘সৌম্যর প্রতিভা নিয়ে কোনো প্রশ্ন নেই। যেহেতু তার ধারাবাহিকতার অভাব, কিছুদিনের বিরতি দিয়েছি ওকে। আমাদের পুলেই সে আছে। আশা করি ছন্দে ফিরবে, ধারাবাহিকতা ধরে রাখবে। তখন তাকে আমরা বিবেচনা করব। তাসকিনেরও একই অবস্থা। গত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে তার পারফরম্যান্স সন্তোষজনক ছিল না। কিছুদিন বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেট খেলার দরকার আছে তার।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশ দলে ছিলেন, এবার বাদ পড়েছেন লিটন দাসও। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজে করেছিলেন ৪১ রান। লিটনকে ওয়ানডেতে বিবেচনা না করা নিয়ে মিনহাজুল বললেন, ‘লিটনকে সব সময় টেস্টে বিবেচনা করি। ও দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্টে ভালো করেছিল বলে ওয়ানডেতে রেখে দিয়েছিলাম। সেখানে অন্য কাউকে নিলে আসা-যাওয়ার ব্যাপার ছিল। কন্ডিশনে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারও ছিল। বড় দৈর্ঘ্যের ক্রিকেটেই তাকে আমরা বিবেচনা করে থাকি।’

দীর্ঘদিন পর বাংলাদেশ ওয়ানডে দলে সুযোগ পেয়েছেন আবুল হাসান। তাঁকে নিয়ে প্রধান নির্বাচক বললেন, ‘আবুল হাসানকে নেওয়া কন্ডিশন বিবেচনায়, সে বল সুইং করাতে পারে।’

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম দুই ওয়ানডের জন্য ১৬ সদস্যের দল ঘোষণা করা হয়েছে ইমরুল কায়েসের বুড়ো আঙুলে চোটের কারণে। শেষ মুহূর্তে যদি ইমরুল না খেলতে পারেন, বাড়তি একজন খেলোয়াড় রাখা সে কারণেই।