রায় নিয়ে লাফালাফির প্রয়োজন নেইঃ কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রায় নিয়ে উচ্ছ্বসিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। বাড়াবাড়ি, লাফালাফি ও মাতামাতির কোনো প্রয়োজন নেই।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ঠান্ডা মাথায় সতর্কভাবে, রাজনৈতিকভাবে রাজনৈতিক দল হিসেবে পরিস্থিতি মোকাবিলা করব।’ তিনি বলেন, আইন প্রয়োগকারী সংস্থা কঠোর অবস্থানে রয়েছে। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা সতর্ক অবস্থায় আছে। আগামী দিনগুলোতে তারা আরও সতর্ক থাকবে। তবে ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে হবে। রাজনৈতিকভাবে কোনো প্রতিবাদ হলে রাজনৈতিকভাবে আওয়ামী লীগ জবাব দেবে।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়ার দুর্নীতি মামলার রায়ে এটিই শেষ কথা নয়। এরপরে হাইকোর্ট, তারপরে আপিল বিভাগ এবং রিভিউয়ের সুযোগ আছে। এখনো তিনটি ধাপ পার হওয়ার সুযোগ আছে। তিনি বলেন, একদিকে বিএনপি ধৈর্য ধরার কথা বলছে, শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের কথা বলছে, অন্যদিকে আজও তারা রায় ঘোষণার দিন রাস্তায় তাণ্ডব ঘটিয়েছে। গাড়ি ভাঙচুর করেছে, অগ্নিসংযোগ করেছে।

ওবায়দুল কাদের প্রশ্ন করেন, কার বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদ? কাল আবার দেশব্যাপী বিক্ষোভ। কার বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ? তার পরদিন শনিবার সারা দিন বিক্ষোভ। কার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ? আদালতের বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ? এটি নজিরবিহীন ঘটনা।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আদালতের রায়কে বিএনপি সংবিধানবিরোধী বলছে। এই ধৃষ্টতা তারা দেখাচ্ছে। আসলে তারা দেশে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদের নামে অশান্তি সৃষ্টি করতে চায়। আজ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা সারা দেশে সতর্ক থাকার কারণে ফখরুল সাহেবদের দুরভিসন্ধি সফল হয়নি।